সর্বজনীন শিক্ষা - অনুচ্ছেদ | Sarbajanina Shikha

বাংলাদেশে সর্বজনীন বলতে মূলত মৌলিক শিক্ষাকে বুঝানো হয়। এই মৌলিক শিক্ষা প্রাথমিক শিক্ষার মাধ্যমে দেওয়া হয়। আনুষ্ঠানিক শিক্ষার প্রথম স্তর প্রাথমিক শিক্ষা।

সর্বজনীন শিক্ষা

সর্বজনীন শিক্ষা অনুচ্ছেদ |  Sarbajanina Shikha

বিষয়ঃ অনুচ্ছেদ সার্বজনীন প্রাথমিক শিক্ষা

শ্রেণীঃ Class 5 6 7 8 9 SSC HSC JSC

শিক্ষা মানুষের অন্যতম মৌলিক অধিকার। বাংলাদেশে সার্বজনীন বলতে মূলত মৌলিক শিক্ষাকে বুঝানো হয়। এই মৌলিক শিক্ষা প্রাথমিক শিক্ষার মাধ্যমে দেওয়া হয়। আনুষ্ঠানিক শিক্ষার প্রথম স্তর প্রাথমিক শিক্ষা। ১৯৯০ সালে প্রাথমিক শিক্ষা বাধ্যতামূলক আইন পাস হয়। ১৯৯২ সালের ১ জানুয়ারি ৬৮টি উপজেলায় বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা চালু হয়। পরবর্তীতে ১৯৯৩ সালের ১ জানুয়ারি সারাদেশে বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা চালু হয়। বর্তমান সরকার গউএ অনুযায়ী ২০১৫ সালের মধ্যে বাংলাদেশে সার্বজনীন প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করার ঘোষণা দিয়েছে।

জনশিক্ষা বা গণশিক্ষা বলতে সাধারণত জনসাধারণের মধ্যে শিক্ষা সম্প্রসারণ বোঝায়। জনশিক্ষা অর্থ ব্যাপক শিক্ষা। দেশের মুষ্টিমেয় ভাগ্যবান শুধু নয়, দেশের বৃহত্তর জনসমাজের জন্য সর্বব্যাপী শিক্ষার ব্যবস্থা করাই গণশিক্ষার উদ্দেশ্য। দেশের আর্থসামাজিক উন্নতিতে গণশিক্ষার গুরুত্ব সর্বাধিক। জনশিক্ষা বৃদ্ধির প্রধান অন্তরায় হিসেবে যে কারণগুলোকে বিশেষভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে, সেগুলো হলো—পরিবারের প্রতিকূল পরিবেশ, দারিদ্র্য, অর্থনৈতিক চাপ ও সামাজিক বিধিনিষেধ। এদেশের অধিকাংশ পরিবারই অশিক্ষিত। শিক্ষার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে তারা সচেতন নয়। ফলে গ্রামে প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকা সত্ত্বেও শিশুরা লেখাপড়ায় অংশগ্রহণ করছে না। দেশের অধিকাংশ লোকের অর্থনৈতিক অবস্থা দারিদ্র্যসীমার নিচে থাকায় শিক্ষা সম্পর্কিত বিবিধ ব্যয় নির্বাহের ক্ষমতা অনেকেরই নেই। অনেকে পরিবার অর্থনৈতিক চাপ নিরসনের জন্য শিশুদের ক্ষেতে-খামারে কাজে লাগিয়ে বিদ্যালয়ে পাঠানো থেকে বিরত হবে। জনশিক্ষা প্রচার তথা দেশকে নিরক্ষরতার অভিশাপ থেকে মুক্ত করার জন্য ব্যাপক উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন। দেশের আপামর জনসাধারণের গ্রহণযোগ্য ও কল্যাণমুখী শিক্ষাব্যবস্থা চালু করতে হবে এবং একটি বিশেষ পর্যায় পর্যন্ত শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করে আইন প্রবর্তন করতে হবে। তৎসঙ্গে দেশের বিত্তবান ও শিক্ষিত সম্প্রদায়কে স্বতঃস্ফূর্তভাবে জনশিক্ষা বিস্তারে সক্রিয় সহযোগিতার হাত প্রসারিত করতে হবে। শিক্ষার আলোয় সবাইকে আলোকিত করতে পারলেই সাধিত হবে দেশ ও জাতির যথার্থ কল্যাণ ।




অনুচ্ছেদ

অনুচ্ছেদ হলো কোন একটি মূল বক্তব্যকে সম্প্রসারিত করে লেখার কয়কেটি পরস্পর সম্পকিত বাক্যের সমষ্টিই অনুচ্ছেদ। কোন একটি নিদিষ্ট চিন্তা/ধারণা বা বিষয়কে কতগুলো পরস্পর সম্পর্কযুক্ত বাক্যের সাহায্যে প্রকাশ করাই হলো “অনুচ্ছেদ লিখন”।


সবগুলো #
Next Post Previous Post
মন্তব্যগুলো দেখান
মন্তব্যগুলো যোগ করুণ

আপনার মূল মান মতামতটি আমাদের জানান। আমি শালীন ভাষা ব্যাবহার করবো এবং অশ্লীল ভাষা ব্যাবহার থেকে বিরত থাকবো। কৌণিক বার্তা.কম আপনার আইপি অ্যাড্রেস ব্লকের ক্ষমতা রাখে।

comment url