এসএসসি বাংলা ২য় ভাবসম্প্রসারণ জন্ম হউক যথা তথা, কর্ম হউক ভালো পিডিএফ ডাউনলোড। কৌণিক বার্তা

জন্ম হউক যথা তথা, কর্ম হউক ভালো

জন্ম হউক যথা তথা, কর্ম হউক ভালো ।

অথবা, নহে আশরাফ যার আছে শুধু বংশের পরিচয় সেই আশরাফ জীবন যাহার পুণ্য - কর্মময় ।

মূলভাব : একজন মানুষের মূল্যায়নের প্রধান মাপকাঠি তার কর্ম । বংশ মর্যাদা যাই হোক কর্মের মাধ্যমেই যেকোনো মানুষ ভালো কিংবা মন্দ হিসেবে চিহ্নিত হয় ।

সম্প্রসারিত ভাব : মানুষের সত্যিকার পরিচয় তার কর্মে ফুটে ওঠে । আভিজাত্য বা বংশ পরিচয় এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ নয় । সদ্বংশে জন্মগ্রহণ করেও যদি কেউ অপকর্মে লিপ্ত থাকে তবে কেউ তাকে শ্রদ্ধা করবে না । অন্যদিকে একজন লোক নীচু বংশে জন্মগ্রহণ করেও তার কর্তব্য - কর্ম ও চারিত্রিক গুণের জন্য সকলের অকুণ্ঠ শ্রদ্ধা অর্জন করতে পারে । দেশের কাছে , দশের কাছে এবং সৃষ্টিকর্তার কাছে একজন মানুষের কর্মই হলো তার একমাত্র পরিচয় । সরোবরের শ্যাওলা অপেক্ষা গোবরের পদ্মফুলের মর্যাদা অনেক বেশি । নীচু বংশে জন্মগ্রহণ করেও বহু লোক তাঁদের সুন্দর আচরণ ও মহৎ কর্মের দ্বারা পৃথিবীতে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছেন ও গৌরবের অধিকারী হয়েছেন । জন্ম হউক যথা তথা, কর্ম হউক ভালো ।

আবার এটাও দেখতে পাওয়া যায় যে , অনেকে অভিজাত বা উঁচু বংশে জন্মগ্রহণ করেও আপন দুষ্কর্মের কারণে সমাজের নীচাসনে বেমে গিয়েছে ও সবার চোখে হেয় প্রতিপন্ন হয়েছে । সংসারের বিশেষ বিশেষ দায়িত্বের মধ্যেই জীবনের বিকাশ । এই দায় - দায়িত্ব যদি ভালোভাবে পালন করা যায় , তবে জীবনের আসল হতো প্রমাণিত হয় । যে ভালো কাজ দ্বারা মানুষের উপকার করে , সে কাজের জন্য মানুষ তাকে যুগ যুগ ধরে মনে রাখে । এভাবে মনে জায়গা পেলেই জীবনের সফলতা প্রমাণিত হবে । পরম প্রভু আল্লাহর কাছে জাতিভেদের কোনো মূল্য নেই ; তাঁর কাছে সৎকর্মেরই কেবল মূল্য আরে। জন্ম হউক যথা তথা, কর্ম হউক ভালো ।

মন্তব্য : বংশের জন্য নয় , কর্মের জন্যই মানুষ প্রকৃত আশরাফ অর্থাৎ মর্যাদার অধিকারী হয় । এব জন্ম হউক যথা তথা, কর্ম হউক ভালো ।



আপনি পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করতে পারবেন 180 সেকেন্ড পর



Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url