কীর্তিমানের মৃত্যু নাই এই ভাবসম্প্রসারণ পিডিএফ ডাউনলোড। অথবা , মানুষ বাঁচে তাহার কর্মের মধ্যে , বয়সের মধ্যে নহে ।

কীর্তিমানের মৃত্যু নাই

ভাবসম্প্রসারণের নিয়মাবলি

ভাবসম্প্রসারণের ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত নিয়মাবলি অনুসরণযোগ্য :

১ . প্রদত্ত চরণ বা গদ্যাংশটি একাধিকবার মনোযোগসহকারে পড়তে হবে । লক্ষ্য থাকবে প্রচ্ছন্ন বা অন্তর্নিহিত ভাবটি কী , তা সহজে অনুধাবন করা । 

২ . অন্তর্নিহিত মূলভাবটি কোনো উপমা , রূপক - প্রতীকের আড়ালে আছে কিনা তা বিশেষভাবে লক্ষ করতে হবে । মূলভাবটি যদি রূপক প্রতীকের আড়ালে প্রচ্ছন্ন থাকে , তবে ভাব - সম্প্রসারণের সময় প্রয়োজনে অতিরিক্ত অনুচ্ছেদ - যোগে ব্যাখ্যা করলে ভালো হয় । 

৩ . মূলভাবকে বিশদ করার সময় সহায়ক দৃষ্টান্ত , প্রাসঙ্গিক তথ্য বা উদ্ধৃতি ব্যবহার করা সংগত । এমনকি প্রয়োজনে ঐতিহাসিক , পৌরাণিক বা বৈজ্ঞানিক তথ্যও উল্লেখ করা যায় । তবে ভুল বা অপ্রাসঙ্গিক তথ্য , উদ্ধৃতি দেওয়ার চেয়ে না দেওয়াই ভালো । 

৪. সহজ - সরল ভাষায় , সংক্ষেপে ভাবটি উপস্থাপন করা উচিত । প্রয়োজনে যুক্তির দ্বারা তাৎপর্যটি উদ্ধার করতে হবে ।

৫. ভাব - সম্প্রসারণ করার সময় মনে রাখতে হবে , যেন বক্তব্যের পুনরাবৃত্তি না ঘটে । বারবার একই কথা লেখা ভাব - সম্প্রসারণের ক্ষেত্রে দোষণীয়। 


অথবা, মানুষ বাঁচে তাহার কর্মের মধ্যে, বয়সের মধ্যে নহে ।

মূলভাব : মানবজীবনে কর্মই মূল্যায়নের মানদণ্ড । বয়স বড় কথা নয় । কাজের মহিমাই মানুষকে যুগ - যুগান্তর ধরে বাঁচিয়ে রাখে ।

সম্প্রসারিত ভাব : মানবজীবনের প্রকৃত সার্থকতা কর্ম - সাফল্যের ওপর নির্ভরশীল , দীর্ঘায়ুর ওপর নয় । মানুষ স্মরণীয় ও বরণীয় হয়ে থাকে তার কীর্তির মাঝে , আর সে কীর্তি মানুষের কর্ম - সাধনার ফল । মানুষের আয়ুষ্কাল সীমিত । একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য মানুষ পৃথিবীতে আসে এবং সে সময়সীমা পার হওয়ার সাথে সাথে বিদায় নেয় পৃথিবী থেকে । মৃত্যুর সাথে সাথে মানুষের জীবন - লীলার অবসান ঘটে । আয়ু যত দীর্ঘই হোক না কেন , কারও দ্বারা যদি মানুষের কোনো কল্যাণ সাধিত না হয় বা মানুষের জন্য কল্যাণকর কোনো কর্মের স্বাক্ষর রেখে যেতে ব্যর্থ হয় , তাহলে তার কথা কেউ কোনোদিন মনে রাখে না । পক্ষান্তরে আয়ু যত কমই হোক না কেন , যদি কেউ মানুষের কল্যাণ ও শাশ্বত সুন্দরের জন্যে কীর্তিগাথা রেখে যেতে সক্ষম হন তাহলে যুগে যুগে মানুষ তাকে স্মরণ করে ; মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা দ্বারা সে সিক্ত হয় । মরেও তিনি বেঁচে থাকেন মানুষের হৃদয়ের মণিকোঠায় । পৃথিবীর ইতিহাসে এমন অনেক মানুষ আছেন মৃত্যু যাঁদের নিঃশেষ করতে পারে নি । হযরত মুহম্মদ ( স ) , হযরত আবু বকর ( রা ) , কাজী নজরুল ইসলাম , স্বনামধন্য আবিষ্কারকগণ , টলস্টয় , শেক্সপিয়ার , এ . কে . ফজলুল হক— এঁদের কেউ আজ বেঁচে নেই । কিন্তু তবু এঁরা আমাদের প্রতিদিনের চিন্তা - চেতনায় জীবন্ত হয়ে আছেন— ' মনের মন্দিরে নিত্য সেবে সর্বজন । ' যুগে যুগে কীর্তিমানেরা মানবকুলের প্রেরণার উৎস হয়ে আছেন । তাঁদের কর্মপ্রেরণায় পৃথিবীর অগ্রযাত্রা অব্যাহত রয়েছে । অনেকে পৃথিবীতে খুব অল্প দিন বেঁচে ছিলেন কিন্তু ইতিহাসের পাতায় অক্ষয় হয়ে আছেন তাঁদের অবিস্মরণীয় কীর্তিগাথার জন্য । কবি সুকান্ত , আবুল হাসান , ডিরোজিও এঁরা পঁচিশ বছর বয়সও পান নি । কিন্তু তাঁরা আজও অমর , অক্ষয় ।

 মন্তব্য : যারা বোকা এবং অবিবেচক তারাই কর্ম সাধনাকে এড়িয়ে চলে । মানুষের অবর্তমানে তার কর্মই বেঁচে থাকে ।


আপনাদের সুবিধার কথা চিন্তা করে এবং আপনাদের ইংরেজি ভাষা পড়া ও চর্চা করার জন্য  কীর্তিমানের মৃত্যু নাই ভাবসম্প্রসারণ ভাবসম্প্রসারণটি ইংরেজি ভাষাতে লেখা হয়েছে নিচে তা ইংরেজি অনুবাদ দেওয়া আছে। আপনি সেখান থেকে পড়তে এবং কপি করতে পারবেন, ধন্যবাদ। 



Kirtiman did not die. 
Or, man lives in his actions, not in his age.  

Principle: In human life, action is the criterion of evaluation.  Age is not a big deal.  The glory of work keeps people alive for ages. 

Expanded Thought: The real success of human life depends on action - success, not longevity.  Man becomes memorable and admirable in the midst of his fame, and that fame is the result of man's deeds.  Human lifespan is limited.  Man comes to earth for a certain period of time and he leaves the earth as soon as that period has passed.  With death comes the end of human life - Leela.  No matter how long one's life is, if one does not do any good to the people or fails to leave a signature of any good deed for the people, then no one ever remembers him.  On the other hand, no matter how short one's life may be, if one is able to leave a legacy for the welfare of man and eternal beauty, then people will remember him from age to age;  She is soaked by human respect and love.  Even if he dies, he lives in the jewel of the human heart.  There are many people in the history of the world who have not been able to get rid of death.  Hazrat Muhammad (PBUH), Hazrat Abu Bakr (RA), Kazi Nazrul Islam, famous inventors, Tolstoy, Shakespeare, a.  K.  Fazlul Haque: None of them are alive today.  But still they are alive in our daily thoughts - in the temple of the mind, everyone is in constant service.  Throughout the ages celebrities have been the source of inspiration for mankind.  The world continues to move forward with their motivation.  Many have lived on earth for a very short time but are immortalized in the pages of history for their unforgettable deeds.  Poets Sukanta, Abul Hasan, Derozio are not even twenty five years old.  But they are still immortal, immortal.

  Comment: Those who are foolish and irrational avoid the pursuit of action.  In man's absence his deeds survive.



আপনি পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করতে পারবেন 180 সেকেন্ড পর



Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url