অনুচ্ছেদ : ফুলদানি | Class 5 6 7 8 9 HSC SSC JSC

অনুচ্ছেদ ফুলদানি ঘরের সাজের সব উপকরণ জুড়েই থাকা চাই স্নিগ্ধতার পরশ। ঘর সাজানোর সুন্দর স্নিগ্ধতা আনতে মনোরমা হয়ে ওঠে ফুলদানি।

ফুলদানি

অনুচ্ছেদ : ফুলদানি | vase Class 5 6 7 8 9 HSC SSC JSC
ফুলদানি

বিষয়ঃ অনুচ্ছেদ ফুলদানি

শ্রেণিঃ Class 5 6 7 8 9 | HSC SSC JSC

ফুলদানি আমাদের ঘর স্নিগ্ধ ও মধুর করে তোলে। মনকে সতেজ স্নিগ্ধ রাখতে মনের মাধুরি মিশিয়ে প্রিয় ঘরটিকে আমরা ভালো লাগার পরিবেশ তৈরি করি। ভালোলাগা খুঁজে পেতে সবাই নজর দেই ঘরের সাজসজ্জার ওপর। ঘরের সাজের সব উপকরণ জুড়েই থাকা চাই স্নিগ্ধতার পরশ। ঘর সাজানোর সুন্দর স্নিগ্ধতা আনতে মনোরমা হয়ে ওঠে ফুলদানি

ফুলদানি যেন শুধু শোপিসই নয়। ঘরের স্নিগ্ধতা বহুগুণে বাড়িয়ে দেয় একগুচ্ছ টাটকা ফুলসহ একটি ফুলদানি। একটি সাধারণ ঘরের কোণ বা টেবিলে নান্দনিক ফুলদানি রাখলে ঘরের পরিবেশটা হয়ে উঠবে অন্যরকম। ফুল ছাড়াও এর সৌন্দর্য কম নয় কোন অংশে। আমাদের ঘরের টেবিল, টিভির ওপর, কর্নার টেবিল, শোকেস, বেডসাইড যেখানেই ফুলদানি রাখা হোক না কেন এর সৌন্দর্যে আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে ঘরটি। আমাদের দেশীয় সংস্কৃতি ফুটিয়ে তুলতে ব্যবহার করা যেতে পারে বাঁশ, বেত, মাটির ফুলদানিগুলো। আমরা চািলে পছন্দমতো টাটকা ফুল বা প্লাস্টিকের ফুলদানি দিয়ে সাজানো যায় ঘর, অফিস। বর্তমান বাংলাদেশের বাজারে নানা রকম ফুলদানি পাওয়া যাচ্ছে। এই ফুলদানিগুলো বৈচিত্র শুধু আকৃতি বা রঙে নয়, আমাদের দেশের বেশকিছু ফ্যাশন হাউস, হস্তশিল্প ও কুটিরশিল্প প্রতিষ্ঠান বৈচিত্র আনছে ফুলদানি তৈরিতে। এসব প্রতিষ্ঠান কাঁচ, মেটাল, সিরামিকের পাশাপাশি বাঁশ, বেত, প্লাস্টিক দিয়েও তৈরি করছে ব্যতিক্রমী ধাঁচের ফুলদানি। আমাদের হাজার বছরের ঐতিহ্য বাঙালি সংস্কৃতির সঙ্গে মিলে যায় এসব ফুলদানির নকশাগুলোতে।

বৈচিত্রময় ফুলদানি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের চাহিদারও এসেছে বেশ পরিবর্তন এর ফলে ফুলদানি তৈরি করতে হয় বৈচিত্রময়। ফুলদানির ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। একটা সময় শুধু মাঝারি আকারের চিকন ফুলদানি বেশি ব্যবহৃত হতো। কিন্তু বর্তমানে এর আকারে এসেছে বেশ ভিন্নতা। বাজারে হরেকরকম ডিজাইনের ফুলদানি পাওয়া যাচ্ছে। বাজারে ফুলদানি পাওয়া যায় তিন কোনা, চার কোনা, গোলাকার, লম্বাটে, ডিম্বাকৃতি।

মানুষ তার নিজ ঘরটিকে নান্দনিকভাবে সাজাতে যেখানে যেমন প্রয়োজন তেমন আকৃতির ফুলদানি ব্যবহার করছে। সেই সঙ্গে ঘর সাজাতে ঘরের আসবাবের রঙ,পর্দা ও ঘরের রঙের সঙ্গে মানানসই রঙের ফুলদানি ব্যবহার করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ বেশ কিছু ফুলদানি রয়েছে যেগুলো ফুলদানি হিসেবে ব্যবহারের পাশাপাশি অন্য কাজেও ব্যবহার করা হচ্ছে। কিছু ফুলদানিতে ঘড়ি বসানোর অবস্থায় পাওয়া যায় আবার এ ফুলদানিগুলো দেয়ালে ফুলসহ ঝুলিয়ে রাখা যায়। সেইসঙ্গে আমাদের ঘড়ির কাজটিও করবে সহজে। আবার কিছু কিছু ফুলদানির সঙ্গে রয়েছে টেবিল ল্যাম্প, ফুল রাখার স্ট্যান্ডের পাশাপাশি রয়েছে পেনহোল্ডারও। একের ভেতর দুই কাজের ফুলদানিগুলো একদিকে যেমন ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করবে অন্যদিকে জায়গাও কম লাগবে। বলা যায় ফুলদানি আমাদের জীবনে আনান্দ ও মধুর করে তোলে৷ আমাদের ঘর বাড়ি অফিস ইত্যাদি জাগায় ফুলদানি ব্যবহার করে থাকি এতে আমাদের দেখতে সুন্দর লাগে।




অনুচ্ছেদ

অনুচ্ছেদ হলো কোন একটি মূল বক্তব্যকে সম্প্রসারিত করে লেখার কয়কেটি পরস্পর সম্পকিত বাক্যের সমষ্টিই অনুচ্ছেদ। কোন একটি নিদিষ্ট চিন্তা/ধারণা বা বিষয়কে কতগুলো পরস্পর সম্পর্কযুক্ত বাক্যের সাহায্যে প্রকাশ করাই হলো “অনুচ্ছেদ লিখন”।


সবগুলো #
Next Post Previous Post
মন্তব্যগুলো দেখান
মন্তব্যগুলো যোগ করুণ

আপনার মূল মান মতামতটি আমাদের জানান। আমি শালীন ভাষা ব্যাবহার করবো এবং অশ্লীল ভাষা ব্যাবহার থেকে বিরত থাকবো। কৌণিক বার্তা.কম আপনার আইপি অ্যাড্রেস ব্লকের ক্ষমতা রাখে।

comment url