বুদ্ধি যার বল তার | ভাবসম্প্রসারণ : বুদ্ধি যার বল তার pdf SSC HSC JSC

বুদ্ধি যার বল তার
কৌণিক বার্তা ওয়েবসাইটে বিভিন্ন শ্রেণীর বিভিন্ন পেশার শিক্ষার্থীদের পাঠ্য পুস্তকের বাইরেও অনেক গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষামূলক বিষয়ের উপর আলোচনা করা হয়ে থাকে। আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে প্রতিদিনই কোনো না কোনো নির্ধারিত বিষয়ের উপর আলোচনা করে থাকে। ষষ্ঠ থেকে থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের একটি আবশ্যিক বিষয় হচ্ছে বাংলা দ্বিতীয় পত্র।
বাংলা দ্বিতীয় পত্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে ভাব সম্প্রসারণ। আমরা প্রতিদিনই এখানে বিভিন্ন ভাব সম্প্রসারণ এর ওপর আলোচনা করে থাকি।

ভাবসম্প্রসারণ  বুদ্ধি যার বল তার ৬ষ্ঠ, ৭ম, ৮ম, ৯ম, ১০ম ১১ ও ১২ শ্রেণীর জন্য কাযকারি । ভাবসম্প্রসারণ  SSC HSC JSC বাংলা ২য় পত্রের পরিক্ষায় সহজ ভাবে লিখে ভালো নাম্বার পাবেন সেই ভাবে লেখা হয়েছে।

মূলভাব:

বুদ্ধিবৃত্তিক শক্তি মানুষের সবচেয়ে বড় শক্তি । বুদ্ধিতে বলীয়ান না হলে মানুষ জীবন পথে সফল হতে পারে না । বুদ্ধিবৃত্তিক উৎকর্য সাধনের জন্যে সচেষ্ট হওয়াই উত্তম পন্থা। বুদ্ধিই মানুষের সবচেয়ে বড় শক্তি বলে বিবেচিত হয়ে থাকে।

সম্প্রসারিত ভাব:

মানুষের দুইটি সত্ত্বা রয়েছে। একটি হলো তার শারীরিক সত্ত্বা , অন্যটি হলো তার মানসিক সত্ত্বা। জীবন চলার পথে সত্ত্বারই ক্ষমতা বা বল প্রয়োজন । শারীরিক শক্তি ছাড়া মানুষের পক্ষে জীবনের দৈনন্দিন কাজ করা সম্ভব হয় না। এমন কিছু কাজ আছে যা করতে কেবল শারীরিক যোগ্যতার প্রয়োজন হয়। এক সময় কায়িক শ্রমেই জীবনের অধিকাংশ কাজ সম্পাদিত হতো। কিন্তু যুগের বিবর্তনে কায়িক শ্রমের গুরুত্ব ধীরে ধীরে কমে  এসেছে । মানুষ তার মেধা ও বুদ্ধিকে খাটিয়ে পৃথিবীর সবকিছুর ওপর বিজয়ী হয়েছে। মানব জীবনের অপরাপর গুণের চেয়ে বুদ্ধির গুরুত্ব ও অবদান অনেক বেশি  এতে কোনো সন্দেহ নেই। বুদ্ধির জোরে মানুষ আবিস্কার করেছে নানা যান্ত্রিক সরঞ্জাম । কলকারখানায় উৎপাদিত হচ্ছে জীবনের প্রায় সকল উপকরণ । শারীরিক শক্তি ‍দিয়ে যা কখনোই করা সম্ভব নয় তা মানুষ যন্ত্র দিয়ে নিমিষেই করতে পারছে। শক্তি দিয়ে অপরের ওপর প্রাধান্য লাভ করা চলে । শক্তিশালী লোককে সবাই ভয় পাই। জলে-স্থলে-অন্তরীক্ষে আজ মানুষের অবাধ যাতায়াত । মাটির গভীর, সমুদ্ররে অতল, শৈলশিখর সবখান থেকে সম্পদ আহরণ করে আধনিক মানুষ তার জীবনের চেহারা বদলে দিয়েছে। জ্ঞান - বিজ্ঞান মানুষের শ্রমের লাঘব করেছে, ঘামকে মুছে দিয়েছে। বুদ্ধির কৌশলে প্রবল শক্তিমানকেও বশ করা যায়। বুদ্ধিকে কৌশলে কাজে লাগাতে পারলে জীবনে উদ্দেশ্য সফল করা যায়। বুদ্ধির কুশলতার সামনে শক্তি পরাজিত  হয়। যে যত বেশি বুদ্ধি রাখে তত বেশি সফল । তাই বুদ্ধিই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। অটোমেশন নামক পদ্ধতিতে পণ্য উৎপাদন প্রক্রিয়ায় মানুষের হাতের স্পর্শ পর্যন্ত লাগে না। আধুনিককালে শক্তি আর যোগ্যতার মূলকথা বুদ্ধিবৃত্তিক সামর্থ্য ছাড়া আর কিছুই নয়। যে ব্যক্তি বা জাতি জ্ঞান-বিজ্ঞান ও বুুদ্ধিতে বলীয়ন তার সাথে কেউ পাল্লা দিতে পারে না। কাজেই বুদ্ধি যার বল তার কথাটি আজকের বাস্তবতার জগতে পুরোপুরি সঠিক।

মন্তব্য:

 শারীরিক শক্তির প্রয়োজনকে অস্বীকার না করেও আমরা বলতে পারি যে , আজকের প্রযুক্তিশসিত জগতে মেধা ও বুদ্ধিকে কাজে লাগিয়েই আমাদের প্রতিষ্ঠিত হতে হবে। বুদ্ধিবৃত্তিক উন্নতি ছাড়া আমাদের নির্বল হয়েই থাকতে হবে। বুদ্ধি হলো এক অনুপম শক্তির নাম যা মহান আল্লাহ্ প্রদত্ত এক আশীর্বাদ স্বরূপ। যার উপর ভরসা করে সবকিছু যথার্থভাবে লাভ করা যায়।


বিঃদ্রঃ বাংলাদেশর সকল শিক্ষা বিষয়ের খবর এবং বাংলা ২য় ও ইংরেজি ২য় এবং সকল বিষয়ের তথ্য জানতে চোখ রাখুন  কৌণিক বার্তা ফেসবুক পেজে নিচে লিংক দেওয়া হলোঃ-


ভাবসস্প্রসারণের সম্পূর্ণ তালিকা
Next Post Previous Post
মন্তব্যগুলো দেখান
মন্তব্যগুলো যোগ করুণ

আপনার মূল মান মতামতটি আমাদের জানান। আমি শালীন ভাষা ব্যাবহার করবো এবং অশ্লীল ভাষা ব্যাবহার থেকে বিরত থাকবো। কৌণিক বার্তা.কম আপনার আইপি অ্যাড্রেস ব্লকের ক্ষমতা রাখে।

comment url